ইন্টারনেটের গতি বাড়িয়ে নিতে যা করণীয়

ইন্টারনেটে অনেকেই আশানুরূপ গতি পান না। বিশেষ করে ওয়াইফাই ইন্টারনেটের গতি কম বেশি হয়। আর এ জন্য রাউটারের অবস্থান এবং সেটিংস গুরুত্বপূর্ণ। রাউটার শুধু সীমিত দূরত্বের মধ্যে সিগনাল বা সংকেত পাঠায়। এর গতি অনেক কিছুর জন্যই বাধা পায়। তার মধ্যে দেয়াল বা আসবাবপত্র অন্যতম। মাইক্রোফোন ও ব্লুটুথ স্পিকারের মতো অন্যান্য ডিভাইস থেকে আসা রেডিও তরঙ্গ সিগন্যালকে ডিসটার্ব বা বিরক্ত করে।

রাউটারটি তাই বাড়ির মাঝখানে বা যেখানে আপনি ইন্টারনেট ব্যবহার করেন সেখানে বসানো উচিত। কিছু রাউটারের বডির ভিতরে অ্যানটেনা থাকে। যদিও কিছু রাউটারের বাইরে থাকে অ্যানটেনা। যা অ্যাডজাস্ট করা যায়। একাধিক তলায় বা ফ্লোরে ওয়াইফাই সিগন্যাল পাঠাতে হরিজোনটাল বা অনুভূমিকভাবে অ্যানটেনা সেট করুন। এটি করার মাধ্যমে সিগন্যাল ওপরে ও নিচে সহজেই যেতে পারবে।

রাউটারে একবার সমস্যা দেখা দিলে ডিভাইসগুলো বন্ধ করুন ও পুনরায় চালু করুন। রাউটার, মডেম বন্ধ করুন ও তা আবার চালু করুন। প্রতিটি ডিভাইসের বিরতি প্রয়োজন হয়। তাই ওয়াইফাইয়ের সঙ্গে যুক্ত যে কোনো ডিভাইস বন্ধ করুন ও ফের তা চালু করুন। মডেম আপনার হোম নেটওয়ার্ক ও আইএসপির মধ্যে প্রাপ্ত ইন্টারনেট সিগন্যালকে ডিস্ট্রিবিউশন করে। ইন্টারনেটের গতি কম থাকলে মডেমটি ফের সেট করুন।

ওয়াইফাই বাড়ির মাঝখানে রাখা হলেও অনেক সময় নেটওয়ার্ক সমস্যা দেখা দেয়। এ সমস্যাটি কাটিয়ে উঠতে এটিতে একটি ডিভাইস যুক্ত করতে হবে। যার মাধ্যমে আপনি নেটওয়ার্ক সমস্যার সমাধান করতে পারবেন। রাউটার ও ডেড জোনের মধ্যে একটি ওয়াইফাইয়ের বুস্টার রাখুন। পাওয়ার লাইন এক্সটেন্ডার কিটও এই ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যেতে পারে।