বাংলাদেশি সমর্থকদের প্রতি মুগ্ধ আর্জেন্টিনা, মুগ্ধ মেসি

বাংলাদেশি সমর্থকদের প্রতি মুগ্ধ আর্জেন্টিনা, মুগ্ধ মেসি
এএফএ পেশাদার সকার লিগের ফেসবুক পেজ থেকে - সংগৃহীত ছবি

ফুটবল বিশ্বকাপের উন্মাদনায় ভাসছে পুরো বিশ্ব। বাংলাদেশের সমর্থকদের মধ্যে আমেজের মাত্রা যেন একটু বেশি। বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ-ক্যাম্পাস, মাঠে-ঘাটে বড় পর্দায় ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার খেলা দেখতে ভিড় করছেন সমর্থকেরা।

মেক্সিকোর বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশে-আর্জেন্টিনা সমর্থকদের একটি উল্লাসের ভিডিও নজর কেড়েছে ফুটবল বিশ্বের। নজর এড়ায়নি বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফারও। পরে সেই ভিডিও ফিফার ভেরিফায়েড টুইটারে পোস্ট করা হয়েছিল। ভিডিওটি রাজধানীর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বলে জানা গেছে।

ভিডিওর ক্যাপশনে ফিফা লিখেছে, ‘এটাই হলো ফুটবলের শক্তি। বাংলাদেশের আর্জেন্টিনা ভক্তরা ফিফা বিশ্বকাপে মেক্সিকোর বিপক্ষে জয়ের ম্যাচে মেসির দেওয়া গোল উদ্‌যাপন করছে।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিশ্বকাপ নিয়ে খুবই সরব বাংলাদেশের সমর্থকেরা। যাঁদের মধ্যে বড় একটি অংশ আর্জেন্টিনার সমর্থন করেন। সমর্থকদের এই আবেগে মুগ্ধ আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনও (এএফএ)। এ জন্য বাংলাদেশের সমর্থকদের উদ্দেশে ভার্চুয়াল একটি পোস্ট করেছে সংস্থাটি। এখানে টুইটার লিংক দেওয়া হলো:

যেখানে মেক্সিকোর বিপক্ষে গোল করার পর উদ্‌যাপনের ছবিতে বাংলাদেশের পতাকা হাতে লিওনেল মেসি। এএফএ তাদের পেশাদার সকার লিগের ফেসবুক পেজ ও টুইটার থেকে ছবিটি পোস্ট করেছে। তারা যেন এটাই বোঝাতে চাইল, বাংলাদেশে সমর্থকেরা আর্জেন্টিনার হৃদয়ে আছেন। সর্বোচ্চ সম্মানে, দলের সেরা তারকা মেসিকে দিয়েই সেটি উপস্থাপন করেছে এএফএ।

‘জয় বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না’‘জয় বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না’
ক্যাপশনে লিওনেল মেসি এবং বাংলাদেশের নাম লিখে, মাঝখানে দেওয়া হয়েছে লেফট ও রাইট ফেসিং ফিস্ট, যা বাংলাদেশের সমর্থকদের প্রতি অভিবাদনের চিহ্ন। আর্জেন্টিনা ও বাংলাদেশের পাশাপাশি পতাকা দিয়ে লিখেছে, ‘এটাই, সেই টুইট। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন।’

সেই ছবিও এখন ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। শেয়ার করে টাইমলাইনে রাখছেন বাংলাদেশের আর্জেন্টিনা সমর্থকেরা।

আগামীকাল রাত ১টায় গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে পোল্যান্ডের বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা। জিতলে কোনো হিসাব ছাড়াই দ্বিতীয় রাউন্ডে চলে যাবে লিওনেল মেসির দল। এখানে এএফএ ফেসবুক লিংক দেওয়া হলো।