বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য নীতিমালা যাতে সহায়ক হয়: অশোক কুমার

সংগৃহীত ছবি

আগামী দ্বাদশ জাতীয় পরিষদ নির্বাচন আসছে, এবং নির্বাচন কমিশন আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক যারা তাদের দেখতে ইচ্ছুক তাদের জন্য ব্যবহারকারী-বান্ধব পর্যবেক্ষণ পদ্ধতি নীতিমালা করতে চায় নির্বাচন কমিশন। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে বিদেশি পর্যবেক্ষক নীতিমালার খসড়া চূড়ান্ত করতে চায় সাংবিধানিক এ সংস্থা।

আজ রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এবং তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন কমিশন সচিবালয়ের কর্মকর্তারা। সকাল ১১টায় কমিশনের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথের সভাপতিত্বে এ বৈঠক হয়।

অশোক কুমার দেবনাথের মতে, বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য নীতিমালা যাতে সহায়ক হয় সে চেষ্টা করা হচ্ছে। তিনি মন্তব্য করেছেন, ‘নীতিমালা পর্যবেক্ষকদের যাতে সহায়ক হয়, ইউজার ফ্রেন্ডলি (ব্যবহারবান্ধব) হয়, সেই ধরনের বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ বিষয়ে পরে আরো বসব। আরো কয়েকটা মিটিং লাগবে।

এরপর কমিশনকে নীতিমালার খসড়া উপস্থাপন করা হবে। কমিশন অনুমোদন দিলে নীতিমালা চূড়ান্ত করা হবে।

অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, ‘বিদেশি পর্যবেক্ষক যারা আসবেন তাদের জন্য নীতিমালা প্রণয়নের বিষয়ে আমরা একদম প্রাথমিক একটা মিটিং করেছি। আরো কয়েকটা মিটিংয়ের প্রয়োজন। আজকে শুধু ব্রেইন স্টোর্মিং হয়েছে, কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি।’

তিনি বলেন, আগামী সপ্তাহে আবার বসব।’ বর্তমান পর্যবেক্ষক নীতি পর্যালোচনা করা হয়েছে।

নীতিমালার কোন কোন জায়গায় পরিবর্তন হবে সে বিষয়গুলো চিহ্নিত করা হয়নি। সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে খসড়া নীতিমালার কাজ শেষ হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। চূড়ান্ত হওয়ার পর কমিশনের ওয়েবসাইটে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।

সেই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে সম্ভাব্য বিদেশী পর্যবেক্ষকরা একটি আবেদন জমা দিতে পারেন।